সাফে আসতে পারে অন্য অঞ্চলের দল

আগামী মাসে ভারতে সাফ অ-১৮ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ অনুষ্ঠিত হবে। সেই চ্যাম্পিয়নশিপে পাঁচটি দল এন্ট্রি দিয়েছিল। শেষ মুহূর্তে শ্রীলঙ্কা ও ভূটান সরে গেছে। ফলে স্বাগতিক ভারত, বাংলাদেশ ও নেপাল এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে।

মাত্র তিন দেশ হওয়ায় টুর্নামেন্ট নিয়ে কিছুটা শঙ্কা ছিল। তবে স্বাগতিক ভারতের আগ্রহে সেই শঙ্কা কেটেছে বলে জানান সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল, ‘ভূটানে করোনা সতর্কতা অত্যন্ত বেশি। এজন্য তারা টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারছে না। শ্রীলঙ্কার সেই রকম প্রস্তুতি নেই। এই পরিস্থিতিতে ভারত তিন দেশ নিয়েই টুর্নামেন্ট আয়োজনে আগ্রহ ও প্রস্তুত বলে জানানোয়। সাফও সম্মত হয়েছে।’

এই তিন দেশ নিয়ে টুর্নামেন্ট হওয়ায় আগামীর জন্য বার্তা মনে করেন হেলাল, ‘টুর্নামেন্ট তার যথাসময়ে হবে যে কয়েকটা দেশ অংশগ্রহণ করবে তাদের নিয়েই।’

মাত্র তিন দেশ হওয়ায় টুর্নামেন্টের আকর্ষণ কিছুটা কমেছে। এই পরিস্থিতিতে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন সাফকে এক পরামর্শ দিয়েছে, ‘অনেক ক্ষেত্রে দল কম হলে অথবা ফরম্যাটে সমস্যা হলে এশিয়ার অন্য অঞ্চলের একটি দলকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে’-বলেন সাফের সাধারণ সম্পাদক হেলাল।

ভারতের জামশেদপুরে ১৫-২৫ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্ট। প্রতিটি দল দুই বার করে একে অন্যের মুখোমুখি হবে। টুর্নামেন্টে নেই কোনো ফাইনাল ম্যাচ। সর্বোচ্চ পয়েন্টধারী দল চ্যাম্পিয়ন হবে। একাধিক দলের পয়েন্ট সমান হলে সেক্ষেত্রে হেড টু হেড আগে বিবেচনায় আসবে।