কার্তিক ঝড়ে জিতল ব্যাঙ্গালুরু

টানা দুই ম্যাচ জিতে রীতিমত উড়ছিল রাজস্থান রয়েলস। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে উড়তে থাকা রয়েলসকে মাটিতে নামিয়ে আনল দীনেশ কার্তিক। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর সঙ্গে ৪ উইকেটে হেরে আইপিএলের ১৫তম আসরে প্রথম পরাজয়ের স্বাদ পেল সাঞ্জু স্যামসনের দল।

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়েতে জস বাটলার ঝড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৯ রানের দারুণ এক সংগ্রহ পায় রাজস্থান।
১৭০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাওয়ার প্লেতে অধিনায়ক ডু প্লেসি দারুণ শুরু করে। কিন্তু ৬ ওভারে বিনা উইকেটে ৪৮ রান তোলার পরই আরসিবি ইনিংসে ধস নামে।

৯ ওভারে দলীয় ৬২ রানে ৪উইকেতে হারিয়ে ফেলে ব্যাঙ্গালুরু। বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে টপ অর্ডারের ৪ জন ব্যাটার ফিরে যান সাজঘরে। কিন্তু শাহবাজ আহমেদ ও দিনেশ কার্তিকের ঝড়ে ৫ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ব্যাঙ্গালুরু।

দীনেশ কার্তিক যখন মাঠে নামেন তখন দলের প্রয়োজন ছিল ৪২ বলে ৮১ রান। সেখান থেকে রবি অশ্বিনের এক ওভারে ২১ রান নিয়ে ম্যাচটাই পালটে দেন এই ডানহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটার। কার্তিকের ২৩ বলে ৪৪ রানের অপরাজিতে ইনিংসে ও শাহবাজ আহমেদের ২৬ বলে ৪৫ রানের ইনিংসে ৪ উইকেটের জয় পায় আরসিবি।

এর আগে টস জিতে ব্যাঙ্গালুরু রাজস্থানকেই ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায়। জস বাটলারের ঝড়ো ৪৭ বলে ৭০ রানের অপরাজিত ইনিংসে ব্যাঙ্গালুরুকে ১৭০ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দেয় রাজস্থান। বাটলারের এই ইনিংসে একটিও চারের মার ছিল না। ৬টি ওভার বাউন্ডারিতে সাজানো ছিল তার এই ইনিংসটি।

ম্যাচ হেরেও রাজস্থান পয়েন্টস তালিকার শীর্ষস্থানে অবস্থান করছে। অপরদিকে আরসিবি অবস্থান করছে ছয় নম্বর অবস্থানে।