আবাহনীকে হারিয়ে লিগ জমিয়ে তুললেন মারুফ

লিগের শুরুতে অনেকেই চট্টগ্রাম আবাহনীকে রেলিগেশন জোনে রেখেছিল। সেই মাঝারি মানের দলকে কোচ মারুফুল হক ছয় ম্যাচ পর্যন্ত অপরাজিত রেখেছেন। মঙ্গলবার লিগের ষষ্ঠ রাউন্ডের ম্যাচে ঢাকা আবাহনীকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে কোচ মারুফুল হকের চট্টগ্রাম আবাহনী।

মারুফের এই জয়ে লিগ টেবিলে বড় পরিবর্তন এসেছে। ঢাকা আবাহনী ৬ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে। সমান ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস ১৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। শেখ জামাল ও চট্টগ্রাম আবাহনী এখন পর্যন্ত লিগের অপরাজিত দল। তারা ১২ পয়েন্ট নিয়ে যুগ্মভাবে তৃতীয় স্থানে।

মঙ্গলবারের ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল কুমিল্লায় চট্টগ্রাম আবাহনীর হোম ভেন্যুতে। মাঠ প্রস্তুত না থাকায় ঢাকা আবাহনীর হোম কুমিল্লায় হয়েছে ম্যাচটি। সেই ম্যাচে আবাহনীর কোস্টারিকান ফুটবলার ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসের গোলে আবাহনী ১৬ মিনিটে লিড নেয়।

চার মিনিট পরই মারুফের পিটার থ্যাঙ্কগড ম্যাচে সমতা আনেন। এই নাইজেরিয়ান আগের ম্যাচে সাইফের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন। থ্যাঙ্কগডের গোলের পর ম্যাচে ফেরে চট্টগ্রাম আবাহনী। ৩৭ মিনিটে উইলিয়াম টেয়ালা চট্টগ্রাম আবাহনীর লিড বাড়ান। মারুফের দল লিড নিয়ে মধ্য বিরতিতে ড্রেসিংরুমে ফেরেন।

বিরতির ২০ মিনিট পর পোপালেজের গোলে মারুফের দলের জয়ের সুবাতাস পেতে থাকে। ৮৯ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান রাফায়েল অগাস্তো ব্যাকভলিতে গোল করে স্কোরলাইন ৩-২ করেন। রেফারি ছয় মিনিট ইনজুরি সময় দেন। এই ছয় মিনিট আবাহনী সমতা আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। মৌসুমে এটি ঢাকা আবাহনীর প্রথম হার।

আবাহনীর ফুটবলাররা হারটি সহজে মেনে নিতে পারেননি। রেফারি সায়মুন সানি ম্যাচ শেষে বাঁশি বাজানোর পর আবাহনীর ফুটবলাররা তাকে কিছুটা জেরা করেন। এই ম্যাচে রেফারিংয়ে অবশ্য তেমন ত্রুটি চোখে পড়েনি।