গরুর মাংসের দাম বেঁধে দেবে সরকার

পবিত্র রমজান মাসে জনসাধারণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখতে মাংসের মূল্য নির্ধারণ করে দেবে সরকার।

রোববার (৩ এপ্রিল) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও ই-কমার্স সেলের প্রধান এ এইচ সফিকুজ্জামান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, প্রতিবারের মতো এবারও রমজান আসার আগে থেকেই দেশের বাজারে মাংসের দামে আগুন লেগেছে। বিশেষ করে শবে বরাতের পর এক লাফে ৬৫০ টাকা ছুঁয়েছে গরুর মাংসের দাম। কোথাও আবার ৭০০ টাকার কমে পাওয়াও যাচ্ছে না। বর্তমান সময়েও রাজধানীতে প্রতি কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকা দরে। যা গত এক সপ্তাহ আগেও বিক্রি হয়েছে ৫৮০ থেকে ৬০০ টাকায়। এরই ধারাবাহিকতায় পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে মাংসের মূল্য নির্ধারণ করে দেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে, রমজান মাসে বাজারমূল্য স্থিতিশীল রাখতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সুলভ মূল্যে দুধ, ডিম ও মাংসের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয়ের বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রতিটি ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে পাস্তুরিত তরল দুধ প্রতি লিটার ৬০ টাকা, গরুর মাংস প্রতি কেজি ৫৫০ টাকা, খাসির মাংস প্রতি কেজি ৮০০ টাকা, ড্রেসড ব্রয়লার প্রতি কেজি ২০০ টাকা এবং ডিম প্রতি হালি ৩০ টাকা দরে বিক্রি করা হবে।

রাজধানীর ফার্মগেটে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর চত্বরে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে তিনি এ তথ্য জানান। এ সময় প্রাথমিকভাবে সচিবালয় সংলগ্ন আব্দুল গণি রোড, খামারবাড়ি গোল চত্বর, জাপান গার্ডেন সিটি, মিরপুর ৬০ ফুট রাস্তা, আজিমপুর মাতৃসদন, নয়াবাজার, আরামবাগ, নতুন বাজার, কালশী এবং যাত্রাবাড়ি ভ্রাম্যমাণ বিপণন ব্যবস্থা চালু করা হবে বলেও জানান তিনি।