শতদ্রু নদীতে পানিপ্রবাহ নিশ্চিতে পদক্ষেপ নেবে পাকিস্তান: ভারত

ভারত-পাকিস্তানের যৌথ নদীরগুলোর একটি হচ্ছে সুটলেজ বা শতদ্রু। এই নদীতে পানি আসার অন্যতম চ্যানেল ফাজিলকা ড্রেইন। এই ড্রেইন থেকে শতদ্রু নদীতে অবাধ পানিপ্রবাহ নিশ্চিত করতে সব প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে পাকিস্তান।

স্থায়ী সিন্ধু কমিশনের (পিআইসি) ১১৭তম সভায় এই আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ১ মার্চ থেকে ৩ মার্চ পর্যন্ত পাকিস্তানের ইসলামাবাদে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। উভয় দেশের সিন্ধু কমিশনারদের নিয়ে গঠিত হয়েছে পিআইসি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতির বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, পিআইসির বৈঠকে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিষয়েও আলোচনা হয়। সেসময় ভারতীয় পক্ষ জানায়, তাদের সব প্রকল্পই ১৯৬০ সালের সিন্ধু পানি চুক্তি মেনে চলছে।

মন্ত্রণালয় আরও বলেছে, বৈঠকে চলমান প্রকল্পের বিষয়ে কারিগরি আলোচনা হয়। এর মধ্যে ছিল পাকাল দুল, কিরু ও নিম্ন কালনাই প্রকল্পের কথাও। ভারত জোর দিয়ে বলেছে, তাদের প্রকল্প পানিচুক্তির ধারার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ আছে। এসময় সিন্ধু কমিশন হাইড্রোলজিক্যাল এবং বন্যার তথ্য বিনিময় নিয়ে আলোচনা করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, উভয় পক্ষই ফাজিলকা ড্রেন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেছে। পাকিস্তান আশ্বস্ত করেছে, ফাজিলকা ড্রেনের অবাধ প্রবাহ সুতলেজ নদীতে নিশ্চিত করার জন্য সমস্ত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া অব্যাহত থাকবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলেছে, ফাজিলকা ড্রেনের অবাধ প্রবাহ জরুরি। কারণ প্রবাহে বাধার ফলে ভারতীয় ভূখণ্ডে ব্যাপক পরিমাণ অপরিশোধিত পানি জমছে। সিন্ধু পানি চুক্তি অনুয়ায়ী, দুই দেশের কমিশনাররা বছরে অন্তত একবার বৈঠক করবেন। কমিশনের সর্বশেষ মিটিং অনুষ্ঠিত হয় দিল্লিতে গত বছরের মার্চের ২৩ থেকে ২৪ তারিখ। সিন্ধু চুক্তি অনুযায়ী, নকশা এবং পরিচালনার জন্য নির্দিষ্ট মানদণ্ডসাপেক্ষে পশ্চিমের নদীগুলোতে জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের অধিকার ভারতকে দেওয়া হয়েছে।