ইউক্রেন থেকে নাগরিকদের সরিয়ে নিচ্ছে চীন

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সর্বাত্মক হামলায় বিপর্যস্ত ইউক্রেন থেকে নাগরিকদের সরিয়ে নিতে শুরু করেছে চীন। পূর্ব ইউরোপের এই দেশটিতে অবস্থিত চীনা দূতাবাসের মাধ্যমে নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার কাজ চলছে। মঙ্গলবার (১ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ইউক্রেনের চীনা দূতাবাস জানিয়েছে, চীনা নাগরিকদের একটি দল গতকালই (সোমবার) ইউক্রেন ছেড়েছে। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, প্রথম দফায় ইউক্রেন ত্যাগ করা নাগরিকরা মূলত চীনা শিক্ষার্থী। এদিন কিয়েভ থেকে মলদোভায় যান তারা

বিবিসি বলছে, ইউক্রেনে হামলা শুরুর কয়েকদিনের মাথায় দেশটি থেকে চীন যে তার নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু করেছে তার বেশ কিছু তাৎপর্য থাকতে পারে। এর একটি হতে পারে যে, বেইজিং প্রাথমিকভাবে মনে করেছিল- হামলা শুরুর আগেই বা হামলার পরপরই নাগরিকদের সরিয়ে এনে রাশিয়াকে বিচলিত না করাটা তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

বিবিসির মতে, আরেকটি সম্ভাবনা হতে পারে যে- চীন হয়তো ভেবেছিল রাশিয়া এতো দ্রুত ইউক্রেন দখল করবে যে তাতে চীনা নাগরিকদের দেশটি থেকে চলে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না।

আর তৃতীয় সম্ভাবনাটি অনেকটা শঙ্কার। আর সেটি হচ্ছে- ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে বুঝতে পেরেছে বেইজিং। আর এ কারণেই হয়তো এখন নাগরিকদের সরিয়ে নিচ্ছে চীন।