আইএসের প্রধান নেতা কুরাইশি সিরিয়ায় নিহত

আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রধান নেতা আবু ইব্রাহিম আল হাশেমি আল কুরাইশি সিরিয়ায় মার্কিন সেনাবাহিনীর হামলায় নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, ‘আমরা যুদ্ধক্ষেত্রে আইএসের প্রধান নেতাকে হত্যা করতে সক্ষম হয়েছি। অভিযানে অংশ নেওয়া সব মার্কিন সেনা সদস্য নিরাপদে ফিরে এসেছেন। দক্ষতা ও সাহসিকতার জন্য সেনা সদস্যদের ধন্যবাদ। তাদেরকে নিয়ে আমরা গর্বিত।’

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশে ইদলিবের আতমে শহরের সংলগ্ন একটি এলাকায় বিমান হামলা চালায় মার্কিন সেনা বাহিনী। হামলায় ৬ শিশু ও ৪ নারীসহ ১৩ জন নিহত হন।

নিহতদের পরিচয় সম্পর্কে এর চেয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি, তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিবৃতির পর স্পষ্ট হলো যে— হামলায় প্রাণ হারানো লোকজনের মধ্যে আইএসের প্রধান নেতা আল কুরাইশিও ছিলেন।

২০১৫ সালে গৃহযুদ্ধ কবলিত মধ্যপ্রাচ্যের ‍দুই দেশ ইরাক ও সিরিয়ার বিশাল এলাকা দখল করে পৃথক রাষ্ট্র বা খিলাফত ঘোষণা করে আইএস। এই রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করা হয় সিরিয়ার রাক্কা শহরে।

সে সময় আইএসের তৎকালীন প্রধান নেতা ছিলেন আবু বকর আল বাগদাদি, যিনি ২০১৯ সালের অক্টোবরে এই ইদলিব প্রদেশেই মার্কিন বাহিনীর হামলায় নিহত হয়েছিলেন।

বাগদাদি নিহত হওয়ার পর আইএসের প্রধান খিলাফত বা নেতার আসনে বসেন কুরাইশি।