কারিনার গাড়িচাপায় সাংবাদিক আহত

বলিউড তারকারা যেখানেই যান সেখানেই পাপারাজ্জিদের ভিড় জমে যায়। কে কার আগে তাদের ছবি তুলবেন— এমন প্রতিযোগিতায় মেতে রীতিমতো হুড়োহুড়ি বাধিয়ে দেন তারা। যদিও এ ধরনের কাণ্ডে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন। তাই এসব স্বাভাবিকভাবেই নেন তারা।

তবে এই স্বাভাবিক ঘটনা থেকেই মাঝে মাঝে ঘটে যায় দুর্ঘটনা। তেমনটাই ঘটেছে বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুরের সঙ্গে। সোমবার (৪ এপ্রিল) একটি বহুতল ভবন থেকে বের হচ্ছিলেন তিনি। রোদ চশমায় চোখ ঢাকা, মাথায় উঁচু করে খোঁপা বাঁধা, পরনে ছিল সাদা টি-শার্ট ও কালো ট্রাউজার। ভবনটির নিচে আগে থেকেই ভিড় জমিয়ে অপেক্ষায় ছিলেন পাপারাজ্জিরা।

কারিনা যখন নিচে নামেন, তখন পাপারাজ্জিরা তাকে লেন্সবন্দি করার জন্য হুড়োহুড়ি শুরু করেন। ওই সময়ই ভিড়ের মধ্যে চলে আসে তার গাড়ি। ঘটে যায় অনাকাঙ্ক্ষিত এক ঘটনা। গাড়ির চাকা উঠে যায় ছবি শিকারে ব্যস্ত এক পাপারাজ্জির পায়ের ওপর।

আহত সাংবাদিক আর্তনাদ করে উঠলে কারিনা চিৎকার করে ‘পিছনে যাও’ বলে ড্রাইভারকে গাড়ি পিছিয়ে নিতে বলেন। তারপর অনেকটা বিরক্ত কণ্ঠেই সামলে চলতে উপদেশ দেন আহত ব্যক্তিকে। খানিকটা থেমে সেই পাপারাজ্জির খোজখবরও নেন তিনি।

এরপর কারিনা গাড়িতে চড়ে বসলে আবারও পাপারাজ্জিরা তার গাড়ির পেছনে দৌড়াতে থাকেন। তিনি তখন তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘কেন দৌড়াচ্ছ? তোমরা এমন দৌড়াদৌড়ি করো না প্লিজ।’

ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সেটি নিয়ে নেটিজেনদের মাঝে তৈরি হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অধিকাংশ মানুষ বলছেন, ‘সেলিব্রেটিদের ছবি তুলতে এমন জীবনের ঝুঁকি নেওয়াটা বোকামি।’

আবার অনেকে গোটা দোষটাই চাপিয়েছেন আহত পাপারাজ্জির কাঁধে। কারিনাকেও দোষ দিচ্ছেন কেউ কেউ। তাদের মতে, আহত সাংবাদিকের প্রতি আরও সংবেদনশীল হওয়া উচিত ছিল কারিনার।

এর আগে শনিবার রাতে পুনে-মুম্বাই হাইওয়েতে দুর্ঘটনার শিকার হন বলিউড অভিনেত্রী মালাইকা অরোরা। আহত অবস্থায় সেদিন রাতেই মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। পরদিন সকালে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরলে তাকে দেখতে যান কারিনা। সেখান থেকে ফেরার পথেই এমন দুর্ঘটনার সাক্ষী হতে হলো এই বলিউড অভিনেত্রীকে।