শরীয়তপুরে নদীতে গোসল এসে শিশু নিখোঁজ

শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার বিথি আক্তার নামের ৬ বছরের এক কন্যা শিশু পদ্মা নদীতে গোসল করতে এসে দুই দিন যাবত নিখোঁজ রয়েছে। সোমবার (৪ এপ্রিল) গোসাইরহাট ও বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের দুটিই ইউনিট অভিযান চালিয়েও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। নিখোঁজ বিথি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ছাত্রী। তার পিতা বাবুল জমাদার পেশায় একজন জেলে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার (৩ এপ্রিল)দুপুর দেড়টায় দাদি মজিতুন্নেসার (৫৫) এর সাথে বাড়ির পাশের পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায় বিথি। দাদি গোসল করে উপরে উঠে আসলেও মুহুর্তের একটি ঢেউয়ের পানিতে ডুবে যায় শিশুটি। দাদির ডাক-চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে খোঁজাখুজি করে না পেয়ে, খবর দেয়া হয় গোসাইরহাট ফায়ার সার্ভিসেকে।

গোসাইরহাট ফায়ার সার্ভিস শিশুটিকে খুজেঁ না পেয়ে বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে অবহিত করে। বরিশাল ও গোসাইরহাট ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল গত ১৬ ঘন্টা যাবত উদ্ধার অভিযান চলিয়েও শিশুটির কোনো সন্ধান পায়নি।

বরিশালের নৌ ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর বলেন, গতকাল আমরা ঘটনাটি শোনার পরেই সরেজমিনে এসে নদীতে নেমে কয়েক দফা খোঁজাখুঁজি করি। নদীতে প্রচন্ড স্রোত থাকায় এখনো নিখোঁজ শিশুটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। দুই দিন যাবত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছি। আজও আমাদের উদ্ধারের কাজ অব্যাহত আছে।