রংপুর চিড়িয়াখানায় বাঘিনীর মৃত্যু

রংপুর চিড়িয়াখানায় একমাত্র বাঘিনী ‌‘শাওন’ মারা গেছে। ১৮ বছর ৭ মাস ৫ দিন বয়সী এই বাঘিনী শুক্রবার রাতে মারা যায়। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বার্ধক্যজনিত কারণে বাঘিনীটি মারা গেছে।

চিড়িয়াখানা সূত্রে জানা গেছে, ছোট বয়সেই ঢাকা মিরপুর চিড়িয়াখানা থেকে দুইটি বাঘের শাবক আনা হয়েছিল। এর একটি বাঘ আরেকটি বাঘিনী। বাঘটি ১০-১২ বছর আগে মারা য্য়া। তখন থেকে সঙ্গী না থাকায় নিঃসঙ্গ অবস্থায় ছিল বাঘিনীটি। শনিবার সকালে ময়নাতদন্ত শেষে চিড়িয়াখানার অভ্যন্তরে বাঘিনীকে মাটিচাপা দেওয়া হয়।

জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রয়াত চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ক্ষমতায় থাকাকালে রংপুর নগরীর হনুমানতলা এলাকার ৮৯ সালে গড়ে তোলেন রংপুর চিড়িয়াখানটি। এটি দর্শনার্থীদের জন্য ৯২ সালে খুলে দেওয়া হয়। প্রায় ২১ একর জমির ওপর এই চিড়িয়াখানাটি অবস্থিত। প্রতিদিন এখানে কয়েক হাজার দর্শনাথীর সমাগম হয়। বর্তমানে রংপুর চিড়িয়াখানায় ৩০টির বেশি প্রজাতির প্রায় সোয়া দুইশত প্রাণী রয়েছে।
রংপুর চিড়িয়াখানার কিউরেটর আম্বর আলী জানান, ‘বাঘিনী শাওন বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছে। ময়নাতদন্ত শেষে তাকে মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে।’