নোয়াখালীতে নকল ট্যাং-সফট ড্রিংক কারাখানাকে অর্থদণ্ড

চলমান রমজানে বাজার তদারকি, নিয়ন্ত্রণ, নকল পণ্য ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধের লক্ষ্যে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলায় অভিযান চালিয়েছে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এ সময় অবৈধভাবে নকল ট্যাং বা সফট ড্রিংক পাউডার তৈরির অপরাধে ‘মিশন সফট ড্রিংক পাউডার’ নামের এক প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

বুধবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার বাংলাবাজারে এ অভিযান পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালীর সহকারী পরিচালক মো. কাউছার মিয়া।

অভিযানে সহযোগিতা করেন সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ।

অভিযান সূত্রে জানা গেছে, রমজানে বাজার তদারকির অংশ হিসেবে জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানকালে বাংলা বাজারে ‘মিশন সফট ড্রিংক পাউডার’ নামের এক প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। ওই প্রতিষ্ঠানটি অবৈধভাবে কোন প্রকার ল্যাব ও কেমিস্ট ছাড়া ট্যাং বা সফট ড্রিংক পাউডার তৈরি করে আসছিল। অভিযানের সময় তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগটি প্রমাণ হওয়ায় প্রতিষ্ঠানের মালিক মো. ফয়েজ আহমেদ চৌধুরীকে অর্থদণ্ড করা হয়। একইসাথে আগামীর জন্য তাকে সর্তক করা হয়েছে।

ভোক্তা-অধিকার অধিদপ্তর জেলার সহকারী পরিচালক মো. কাউছার মিয়া জানান, জনস্বার্থে এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া রমজানে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখতে আমাদের এ অভিযান চলমান থাকবে।