দ্বায়িত্বরত অবস্থায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

দ্বায়িত্বরত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন মো. মনিরুজ্জামান (৪০) নামে এক পুলিশ সদস্য।

বুধবার (৯ মার্চ) ভোর আনুমানিক সাড়ে ৪টার দিকে গোপালগঞ্জ শহরের চাঁদমারী এলাকায় দ্বায়িত্বপালন করার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মনিরুজ্জামান ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার লঙ্কারচর গ্রামের ইমাম হাসান মোল্লার (মৃত) ছেলে। তিনি গোপালগঞ্জ সদর থানার সদর পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত ছিলেন। মনিরজ্জামানের স্ত্রী সালমা গোপালগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে কর্মরত আছেন। তাদের নয় বছর বয়সী একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

মো. মনিরুজ্জামানের সহকর্মীরা জানান, মনিরুজ্জামান সরল প্রকৃতির মানুষ ছিলেন। সব সময় হাসিখুশি থাকতেন। সততার সঙ্গে কাজ করতেন তিনি। মঙ্গলবার (৮ মার্চ) রাত ১১টায় রাতের খাবার খেয়ে দ্বায়িত্ব পালন করতে আসেন। এরপর ভোর আনুমানিক ৪টার দিতে হঠাৎ শরীর খারাপের কথা বলেন তিনি। পরে তাকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. অমিত সরকার বলেন, ‘ভোর আনুমানিক সাড়ে ৪টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাকে মৃত পাই। তিনি আগে থেকেই হৃদরোগ ও খিঁচুনিজনিত রোগে আক্রান্ত ছিলেন বলে জানতে পেরেছি।’

ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, মো. মনিরজ্জামান দুই বছর ধরে এই থানায় কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার মৃত্যুর ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। তার মরদেহ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দিয়ে গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।