কিশোরগঞ্জে কৃষক হত্যা মামলা রায় : একজনের মৃত্যুদণ্ড

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে মফিজ ইদ্দীন নামে এক কৃষক হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড ও আরেকজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২১ মার্চ) বিকেলে কিশোরগঞ্জের দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নার্গিস ইসলাম এই রায় দেন। একই সঙ্গে আদালত তাদের ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম আবু বাক্কার (৪৫)। তিনি করিমগঞ্জ উপজেলা সদরের খুদিরজঙ্গল গ্রামের মৃত আবদুল জব্বারের ছেলে।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হলেন, মো. হারেছ (৫৫)। তিনিও একই গ্রামের হাচু মিয়ার ছেলে।

রায় ঘোষণার সময় আসামিদ্বয় আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত থেকে রায় শুনেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০১০ সালের ৫ মে করিমগঞ্জ বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন কৃষক মফিজ উদ্দিন। কিন্তু রাত হওয়ার পরেও পরিবার তার কোন সন্ধান পাননি। পরে সকালে খুদিরজঙ্গল নামক এলাকায় কাঠের সেতুর নিচে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নিহত কৃষকের ছেলে আলী আকবর বাদি হয়ে ২২ মে আবু বাক্কার ও মো. হারেছ মিয়াকে সন্দেহভাজন আসামি করে করিমগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এই মামলায় গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক শেখ আব্দুল্লাহ দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ১২ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। দীর্ঘ সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আদালত আজ এ রায় ঘোষণা করেন।

কিশোরগঞ্জের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।